ওজন কমানোর জন্য বেছে খাবার খাওয়া খুব গুরুত্বপূর্ণ। বিভিন্ন হেলথ ব্লগে ওজন কমাতে সাহায্যকারী বিভিন্ন ধরনের সুপারফুড-এর কথা প্রায়ই শোনা যায়। কিন্তু অধিকাংশই হয় এমন কিছু খাবারের নাম যা বাংলাদেশে সব জাগায় সহজলভ্য না। ফলে এটা ওটা জোগাড় করার ঝামেলায় হতাশ হয়ে হাল ছেড়ে দেন অনেকেই।

তাই ওজন কমানোকে সহজ করতে আজকে আমরা এমন ৫টি দেশি সুপারফুড-এর কথা আলোচনা করবো যা সহজলভ্য এবং স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী।

মসূর ডাল:

লেন্টিলস বা মসূর ডাল প্রোটিন এবং ফাইবারের একটি উৎকৃষ্ট উৎস। এর প্রতি আধা কাপে আছে ৩.৪ গ্রাম রেসিস্টেন্ট স্টার্চ এবং এমন একটি স্বাস্থ্যকর কার্বোহাইড্ৰেট যা মেটাবলিজম হার বৃদ্ধি করে ও মেদ কমাতে সাহায্য করে। 

কলা:

সামান্য কাঁচা বা পাকা একটি মিডিয়াম সাইজের কলা হালকা ক্ষুধায় স্ন্যাকস হিসেবে কাজ করবে। এতে থাকে ১২.৫ গ্রাম রেসিস্টেন্ট স্টার্চ। এটিও মেটাবলিজম ত্বরান্বিত করে।

পালং শাক:

পালংশাক আয়রন, পটাসিয়াম, ফাইবার আর প্রোটিনে ভরপুর। পটাসিয়াম ব্লোট-বাস্টার হিসেবে পরিচিত যা পেটের জন্য খুব ভালো। পালং শাকে ফ্যাট ও কোলেস্টরোল একদম কম থাকায় এটি ওজন কমানোর জন্য একটি দারুণ সুপারফুড। পালংশাকের তৈরী সালাদ বা স্মুদি আপনার পেট ভরা রাখবে দীর্ঘসময়।

ছোলা:

ছোলা বা চিকপিসের হাই ফাইবার কন্টেন্ট আপনার হজম শক্তি বাড়ায়। এটি খুব দ্রুত তৃপ্তি আনে এবং ওজন কমাতে সাহায্য করে। সবচেয়ে বড় ব্যাপার, এটি উদ্ভিজ্জ প্রোটিনের দারুন উৎস, দেহে ভিটামিন ও মিনারেল সরবরাহ করে এবং ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখে।

শিমের বিচি:

প্রোটিনে ভরপুর এই খাবারটিও ফ্যাট ও কোলেস্টরল ধারণ করে না বললেই চলে। তাই এটি আপনার পেট ভরা রাখতে সাহায্য করে ওজন বৃদ্ধি ছাড়াই। বিভিন্ন ধরণের শিমের  বিচি বা বিনস-এর  মধ্যে কিডনি বিন ও ব্ল্যাক বিন সবচেয়ে বেশি উপকারী। এগুলো দেহে সুগার লেভেল না বাড়িয়েই প্রচুর এনার্জি সরবরাহ করে, যা অতিরিক্ত ক্যালরি খরচের সুযোগ সৃষ্টি করে। এছাড়াও এতে আলফা অ্যামিলেস-এর উপস্থিতি দেহে স্টার্চ জমতে দেয় না।

আপনার মনে হতে পারে এগুলো দিয়ে সুস্বাদু লাঞ্চ বা ডিনার কিভাবে তৈরী করা যায়। দেখে নিন একটি সহজ রেসিপি-চিকপিস অ্যান্ড কিডনি বিন সালাদ

ওজন কমানোর সময় ব্যায়ামের সাথে সঠিক খাবারে বিষয়টা মাথায় রাখা বেশ জরুরি। একজন নিউট্রিশনিস্ট এর সাথে কথা বলে, আপনার পেশা, লিঙ্গ, বয়স অনুযায়ী সঠিক খাদ্যতালিকা তৈরী করতে পারেন। টনিক মেম্বারশীপেরমাধ্যমে ৭৮৯ -এ কল দিয়ে ঘরে বসেই নিতে পারেন ডাক্তারের পরামর্শ। অথবা টনিকের তালিকাভুক্ত আপনার পছন্দের ডাক্তারের অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিতে পারেন টনিক অ্যাপ এর মাধ্যমে। আপনার সার্বিক সুস্থতাই আমাদের কামনা। 

লিখেছেন
টনিক
Tonic