কেউ কেউ মনে করেন ব্যায়াম করলে ক্ষুধা বেড়ে যায়, বেশি বেশি খেতে ইচ্ছা করে। আবার কেউ কেউ ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে মনে করেন যে ব্যায়াম করে খাওয়ার ইচ্ছা কমে যায়। আসলে সঠিক কোনটা?

ব্যায়াম আমরা করি শরীর ফিট, সুস্থ সবল রাখার জন্য। নিয়মিত ব্যায়াম করলে হার্ট ভালো থাকে, দেহ-মন প্রাণবন্ত থাকে। দেখা যায়, একই বয়স দুইজন মানুষের। কিন্তু শুধু মাত্র নিয়মিত ব্যায়াম বা শরীরচর্চার কারণে একজনের শারিরীক ও মানসিক সুস্থতা অন্যজনের চেয়ে ভাল। তবে শুধু ব্যায়াম করলেই তো হবে না। ব্যায়ামের সাথে জীবন-যাপনের প্রণালীও নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। সর্বোপরি খাবার নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। এক্ষেত্রে দেখা যায় ব্যায়াম করলে স্বাভাবিকভাবেই ক্ষুধা বৃদ্ধি পায়। খেতে ইচ্ছা করে।
খেলে ইচ্ছা করলে খান, এতে বারণ নেই। তবে খেয়াল রাখবেন আপনার খাবার পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ এবং নিয়ন্ত্রিত ক্যালোরির কিনা। খুব বেশি ক্যালোরির খাবার খেলেন তবে সে অনুযায়ী ব্যায়াম করে সেটাকে বার্ন করলেন না, তাহলেই কেবল সে খাবার আপনার ক্ষতির কারণ হবে। অন্যথায় নয়।

তাই খাবার খাওয়ার সময় কিছু ব্যপার মাথায় রাখুন-

  • ব্যায়ামের পর উচ্চ ক্যালোরির খাবার না খেয়ে ব্যায়ামের আগে খেতে পারেন। ব্যায়ামের পর প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার খান।

  • প্রতিদিন পর্যাপ্ত পানি খান।

  • ফলের রস বা ফলের সালাদ খেতে পারেন তবে তাতে ভুলেও চিনি মিশাবেন না। কারণ চিনির উপকারী কোন দিক নেই, পুরোটাই ক্ষতি।

শরীরের সুস্থতা নিশ্চিত করতে ক্যালোরি মেপে খাবার খাওয়ার বিকল্প নেই। ব্যায়াম করলে ক্ষুধা বাড়তেই পারে তবে যাই খাবেন দেখে-শুনে দেখে হবে।

agency_content's picture
লিখেছেন
টনিক
Tonic is there to assist you no matter how big or small your problems may be