পারিবারিক বন্ধন দৃঢ় করার ১০ স্বাস্থকর উপায়

ব্যস্ততা আজ অনেককেই অবসর দেয় না, যার ফলে ধীরে ধীরে দূরে সরে যেতে থাকে পরিবার। কিন্তু শিশুদের সাবলীলভাবে বেড়ে ওঠা নিশ্চিত করতে একটি সুস্থ ও সুন্দর পারিবারিক পরিবেশ নিশ্চিত করা খুবই জরুরী। আর সেজন্যই টনিক বাতলে দিচ্ছে ১০টি উপায় যাতে পারিবারিক বন্ধন দৃঢ় হওয়ার পাশাপাশি সুস্বাস্থ্যও নিশ্চিত হবে।

পরিবারের সঙ্গে সুন্দর সময় কাটানোর মহামন্ত্র হলো সবাই একসঙ্গে করে মজা পাওয়া যায় এমন কোনো কাজ খুঁজে বের করা। আমরা বেশ কিছু পরিবারের সঙ্গে কথা বলে জেনেছি তারা কিভাবে একসঙ্গে সময় কাটান এবং কেন তা তাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ:

১. কাজ শেষে ঘরে ফেরার পর সবাই মিলে হাঁটতে যাওয়া। এতে সারাদিন যা যা ঘটলো তা একে অন্যের সঙ্গে ভাগাভাগি করে নেয়ার সুযোগ পাওয়া যায়।

২. শরীরচর্চাকে একটি পারিবারিক আয়োজনে পরিণত করা। পরিবারের সবাই মিলে যে কোনো ধরনের ব্যায়াম করুন। এতে করে সন্তানদের সঙ্গে কেবল যে সুন্দর সময় কাটাতে পারবেন তা নয়, তাদের মধ্যে শরীরচর্চার সু-অভ্যাসও গড়ে উঠবে।

৩. বাড়ির ভেতরেই তৈরি করুন নানা ধরনের প্রতিবন্ধকতা পেরুনোর খেলা। দৌড়ানো, লাফানো বা কোনো কিছু ধরে ঝোলা - এমন সব খেলায় বাচ্চাদের সঙ্গে যেমন সুন্দর সময় কাটাতে পারবেন, সেই সঙ্গে আপনার শরীরচর্চাও হয়ে যাবে।

৪. পরিবারের সবাই মিলে বাড়ির কাছাকাছি কোনো মাঠ বা পার্কে যান। বাচ্চাদের সঙ্গে বাচ্চা বনে গিয়ে ছোঁয়াছুঁয়ি, ফুটবল বা ক্রিকেট খেলুন বা ঘুড়ি ওড়ান। স্রেফ দৌঁড়ালেও দেখবেন অনেকটা চাঙ্গা লাগছে।

৫. ছুটির দিনে সবাই মিলে সাইকেল চালান বা সাঁতার কাটুন। সাইকেল চালিয়ে নতুন নতুন জায়গায় যাওয়া কিংবা এমন গরমের সময় সবাই মিলে পানিতে কিছুক্ষণ দাপাদাপি করলে দেখবেন কতোটা ভালো লাগছে।

৬. ছুটির দিনটিতে বন্ধ থাকুক স্মার্টফোন, ট্যাব, টিভির মতো যন্ত্রগুলো। পরিবারের জন্যই বরাদ্দ থাকুক পুরোটা সময়।

৭. রাতের খাবারটা সব সময় পরিবারের সবাই মিলে একসঙ্গে খাওয়ার চেষ্টা করুন। সেই সঙ্গে খাবারের আয়োজনেও সবাই অংশ নিন। আপনি যখন খাবার তৈরি করছেন তখন বাচ্চাদের বলুন গ্লাস, প্লেট সাজিয়ে দিতে। মাঝে মাঝে খাবার তৈরিতেও তাদের অন্তভূর্ক্ত করুন।

৮. বাচ্চাদের নিয়ে বেরিয়ে আসুন চিড়িয়াখানা বা ইকোপার্ক থেকে। শহুরে জীবনে একটু সবুজ বিরতি যেমন প্রশান্তি দেবে, তেমনি বাচ্চারা পশুপাখি, গাছপালা চিনতে শিখবে।

৯. অভিযান কে না ভালোবাসে! নিজেরাই নিজেদের অভিযানের পরিকল্পনা করুন। বাচ্চাদের নিয়ে চলে যান নতুন কোনো নদী, বন বা পুরোনো কোনো জমিদারবাড়ি দেখতে কিংবা নতুন ধরনের কোনো খাবারের স্বাদ নিতে।

১০. হিমালয় জয় করতে বলছি না! তবে বাচ্চাদের নিয়ে ছুটি কাটানোর জন্য যেতে পারেন এমন কোনো জায়গায় যেখানে কিছুটা হাইকিং বা পায়ে হেঁটে কোথাও পৌঁছানোর সুযোগ থাকে। এতে সবাই মিলে একটা অভিযানের স্বাদ পাওয়া যাবে এবং বাচ্চারা পরিশ্রম করতে শিখবে।

আর্টিকেলটি ভালো লাগলে এখনি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন #mytonic লিখে।

৯১০ বার পড়া হয়েছে জুলাই ১৯, ২০১৬


৯১০ বার পড়া হয়েছে


tonicadmin's picture

লিখেছেন টনিক

ভালো থাকতে ছোট বড় সব চেষ্টায় আপনার পাশে আছি আমরা। টনিক।

সংশ্লিষ্ট প্রশ্ন

উত্তর দেখুন
 
লোডিং...

টনিক ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন

আজই টনিকের সকল সাধারণ ফিচার উপভোগ করুন

আপনার গ্রামীণফোন নাম্বারটি প্রদান করুন

০১৭ -

Top