আবহাওয়ার পরিবর্তনের সময় শিশুদের বাড়তি যত্ন নেয়া প্রয়োজন। কারণ এ সময় শিশুরা রোগের ঝুঁকিতে থাকে। বিশেষ করে শিশুদের অ্যাজমার সমস্যা থাকলে ঠান্ডা আবহাওয়ায় তার প্রকোপ বেড়ে যায়। এ নিয়েই আমাদের এবারের আয়োজন-

হাঁপানি শব্দটির সাথে কমবেশি সকলেই পরিচিত। গ্রীক শব্দ Asthma থেকে বাংলায় হাঁপানি। যার অর্থ হাঁপান বা হাঁ করে শ্বাস নেয়া।

সামান্য একটু ঠান্ডা লাগা থেকেই বেড়ে যেতে পারে অ্যাজমা বা হাঁপানি রোগ। তাই এটাকে হালকা ভাবে নেয়ার কোন সুযোগ নেই। সাধারণত শরতের শেষ দিকে থেকে শুরু করে শীত আসার আগে আগেই ঠান্ডা লাগা শুরু হয়। এ সময় ফ্লু ও অন্যান্য আবহাওয়া জনিত রোগের প্রকোপ বেড়ে যায়। মূলত আবহাওয়ার পরিবর্তনের কারণেই এইসব রোগ ছড়াতে থাকে এবং হাঁপানি বাড়িয়ে দেয়।

অ্যাজমা/ হাঁপানির লক্ষণ সমূহঃ অ্যাজমা বা হাঁপানিতে আক্রান্ত হলে সাধারণত নিচের লক্ষণগুলো প্রকাশ পায়-

-শ্বাস কষ্ট হওয়া

-শ্বাস নেয়ার সময় সাঁ সাঁ জাতীয় শব্দ হওয়া

- কাশি

- দম বন্ধ লাগা

রোগের কারণ-

  • শ্বাসনালির চার পাশের মাংসপেশি সংকুচিত হয়, ফলে বাতাস চলার পথ সরু হয়ে যায়।

  • বিভিন্ন রোগজীবাণুর সংক্রমণে শ্বাসনালির ভেতরের স্তরে প্রদাহ হওয়া বা ফুলে ওঠা।

  • দূষিত বাতাস গ্রহণের ফলেও দিন দিন শিশুদের মধ্যে হাঁপানির প্রকোপ বেড়ে চলছে।


অ্যাজমা সাধারণত বংশগত রোগ। তবে আবহাওয়ার পরিবর্তন, বাড়িঘরের ধুলা-ময়লা, উৎকট গন্ধ বা স্প্রে, সিগারেট বা অন্যান্য ধোঁয়া ইত্যাদি কারণে এই রোগ বাড়তে পারে।

অ্যাজমা নিয়ন্ত্রণে রাখার উপায়ঃ অ্যাজমা রোগের প্রতিকার হিসেবে নিচের পদ্ধতিগুলো অনুসরণ করতে হবে।

-অ্যাজমা আক্রান্ত শিশুর বাবা মা’র ধূমপান করা উচিত নয়।

-অ্যাজমা সর্দি, কাশির মত ছোঁয়াচে রোগ নয়। শিশুর অ্যাজমা হলেও মায়ের বুকের দুধ খেতে কোন বাঁধা নেই। এই রোগ একজন থেকে অন্যজনে ছড়াবে না।

-শিশুকে সব সময় পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখুন এবং ধুলাবালি থেকে দূরে রাখুন।  

-শিশুকে পুরোনো কাপড় পরানো উচিত নয়। কারণ পুরোনো কাপড়ে ধুলা ময়লা লেগে থাকে। তাই শিশুকে সব সময় পরিষ্কার কাপড় পরানো উচিত।

-শিশুকে সাধারণ ব্যায়াম করানোর অভ্যাস করান। প্রয়োজনে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

শিশুর অ্যাজমা হলে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। চিকিৎসকের পরামর্শ মত চললে এবং ঠিকমত চিকিৎসা করালে রোগ নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়।

agency_content's picture
লিখেছেন
টনিক
Tonic is there to assist you no matter how big or small your problems may be