যেকোনো বয়সেই ত্বকে র‍্যাশ বা লালচে ফুসকুড়ি উঠতে পারে। ত্বক পুড়ে গেলে বা অ্যালার্জির উদ্রেক করে এমন কিছুর সংস্পর্শে আসলে, খাবারে অ্যালার্জি, অটোইমিউন ডিজিস,  ইত্যাদি বিভিন্ন কারণেই র‍্যাশ উঠতে পারে। তবে সবচেয়ে বেশি যে কারণটি দেখা যায় তা হচ্ছে গরম বা তাপ ! গ্রীষ্মকালে রোদের প্রখর তাপ ও অতিরিক্ত গরমের কারণে ত্বকে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা হয়। এর মধ্যে কিছু কিছু র‍্যাশ নিয়ে চিন্তার কারণ না থাকলেও, কিছু কিছু ক্ষেত্রে র‍্যাশের চিকিৎসা জরুরি হয়ে পড়ে।

প্রথমেই জেনে নিন র‍্যাশ কি?
র‍্যাশ হলে সাধারণত আঁচের মতো , ঘামাচির মতো হয়। ভাইরাস বা ব্যাকটেরিয়াল র‍্যাশ, এলার্জিক র‍্যাশ, অটো ইমিউন র‍্যাশ হতে পারে। এই সমস্যা ছোট-বড় সবারই হতে পারে।

অনেক সময় গরম পানি গোসলের সময় ব্যবহারের ফলেও র‍্যাশ হয়। তখন গরম পানি ব্যবহার করা যাবে না। ঠাণ্ডার দিন হলে কুসুম গরম পানি ব্যবহার করতে হবে। পাতা বা ঘাসের কাছে গেলে যদি র‍্যাশ হয় সেগুলো থেকে দূরে থাকতে হবে।

র‍্যাশ প্রতিরোধের আরেকটি উপায় হলো পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকা। বাইরে থেকে এসে ভালো করে হাত ধুতে হবে।  যেন কোনো ছোঁয়াচে রোগ-জীবাণু সাথে করে ঘরে না আসে। যেমন- ফ্লু! বাচ্চারা অনেক সময় স্কুল থেকে এই জীবাণুটি ঘরে বয়ে নিয়ে আসে।

র‍্যাশের অন্যান্য কারণঃ

  • ত্বকে র‍্যাশ ওঠার সবচেয়ে সাধারণ কারণটি হলো খাদ্যের অ্যালার্জি। খাদ্যের অ্যালার্জি গ্যাসট্রোইনটেস্টিনাল সমস্যাসহ র‍্যাশ উঠতে পারে। এতে ত্বক লালচে হয়ে চুলকাতে পারে।

  • অন্যান্য ওষুধ খাওয়ার ফলে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হিসেবে ত্বকে র‍্যাশ উঠতে পারে। এ ধরনের র‍্যাশকে বলে ড্রাগ ইরাপশনস। অন্য কোনো চিকিৎসা নেওয়া অবস্থায় এমন র‍্যাশ উঠলে জরুরি ভিত্তিতে চিকিৎসকের কাছে যান।

  • অনেক সময় আমাদের নিজের শরীরের রোগ প্রতিরোধকারী সিস্টেমই আমাদের ত্বক বা অন্য কোন টিস্যুকে আক্রমণ করে।। এ ধরনের সমস্যাকে অটোইমিউন ডিজিস বলে। উদাহরণস্বরূপ বলা যায়, পরিয়াসিস এমন এক অটোইমিউন পরিস্থিতি যার ফলে আমাদের রোগ প্রতিরোধ কারী সিস্টেম আমাদের ত্বকে আক্রমণ করে ফলে ত্বকে র‍্যাশ উঠে  এবং চুলকানি হয়। নাকের দুই দিকে প্রজাপতি আকৃতির এমন লালচে র‍্যাশ ওঠাও অটোইমিউন ডিজিজের লক্ষণ।

  • বেশ কিছু রোগ আছে যার সংক্রমণ ঘটলে দেহে র‍্যাশ উঠতে পারে। জীবাণুর সংক্রমণে এমন র‍্যাশ ওঠার সবচেয়ে সাধারণ উদাহরণটি হলো চিকেন পক্স। এ ছাড়া ত্বকে ব্যাকটেরিয়া বা ছত্রাক সংক্রমণের ফলেও র‍্যাশ ওঠে।

আপনার ত্বকের জন্য স্পর্শকাতর যেকোনো কিছুর ছোঁয়ায় অ্যালার্জি আকারে র‍্যাশ দেখা দিতে পারে। অনেকের ত্বকে গোসলের সাবানেও অ্যালার্জি থাকতে পারে। সে ক্ষেত্রে এদের থেকে দূরে থাকতে হবে এবং প্রয়োজনে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

 

 

agency_content's picture
লিখেছেন
টনিক
Tonic is there to assist you no matter how big or small your problems may be