থাইরয়েড আমাদের শরীরের একটি গুরুত্বপূর্ণ গ্রন্থি যা শরীরের মেটাবলিজম, হৃদযন্ত্রের কার্যকলাপ, তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ, মস্তিষ্কের বৃদ্ধি সহ   বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ন্ত্রণ করে। থাইরয়েড জটিলতায় কিডনি, লিভার, প্রজনন এমনকি মস্তিষ্কের সমস্যা পর্যন্ত দেখা দিতে পারে। অনেকসময় নিজেদের অসচেতনটা ও অবহেলার কারণে থাইরয়েড সমস্যার লক্ষণ প্রকাশ পেলেও একে অতটা গুরত্ব দেইনা আমরা। যার পরিণতি হতে পারে ভয়াবহ। এমনি ৭টি লক্ষণ হতে পারে,

  • অল্পতেই কাজে ক্লান্তি চলে আসা, বিরক্তবোধ করা।

  • স্বাভাবিক মানুষের হার্টবিট মিনিটে ৬০-১০০ পর্যন্ত হতে পারে। থাইরয়েড সমস্যার কারণে এই রেট অনেক কম বা বেশি হতে পারে।

  • অল্পদিনের মধ্যে শরীরে হঠাৎ ওজন কমে যাওয়া বা বেড়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে লক্ষ্যণীয় পরিবর্তন আসা।

  • শরীরের ত্বকে শুষ্কভাব চলে আসা এবং নখ ভঙ্গুর হয়ে যাওয়া।

  • বিভিন্ন তাপমাত্রার প্রতি সহনশীলতা কমে যাওয়া, তাপমাত্রা সামান্য কমলেই বেশি বেশি ঠাণ্ডা লাগা বা সামান্য বাড়লেই আসহ্য গরম লাগা এবং অতিরিক্ত ঘামা।

  • গলার সামনে দিকে মাঝখানে (যেখানে থাইরয়েড গ্রন্থি থাকে) কোন ধরনের ফোলা ।

  • প্রায়ই পাতলা পায়খানা বা কোষ্টকাঠিন্য হওয়া, মাসিক বন্ধ হয়ে যাওয়া বা খুব কম বা বেশি হওয়া

পরীক্ষানিরীক্ষার মাধ্যমে সহজেই থাইরয়েড সমস্যা সনাক্ত করে এর চিকিৎসা করা যায়। তাই এসব লক্ষণ দেখা দিলে দেরী না করে ডাক্তারের শরণাপন্ন হওয়া উচিত। আর ডাক্তারের বিশেষ করে হরমোন বিশেষজ্ঞ এর  অ্যাপয়েন্টমেন্ট করার জন্য ব্যবহার করতে পারেন টনিকের অ্যাপয়েন্টমেন্ট বুকিং সেবা

agency_content's picture
লিখেছেন
টনিক
Tonic is there to assist you no matter how big or small your problems may be