রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ও মস্তিষ্ক

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বা ইমিউনিটি ভালো থাকলে নানা অসুখ বিসুখ থেকে রেহাই পাওয়া যায় - এ আমরা সবাই জানি। তবে যেসব রোগ বিশেষ করে আমাদের মস্তিষ্ককে আক্রান্ত করে তাদের সবসময়ই একটু ভিন্ন চোখে দেখা হয়েছে। এধরণের অসুখের ধরণ, প্রতিরোধ বা প্রতিকার করবার উপায় এবং চিকিৎসা নিয়ে গবেষণাও হয়েছে অনেক। সম্প্রতি জানা গেছে শক্তিশালী ইমিউন সিস্টেম অন্য আরো রোগের মত মস্তিষ্কের বিভিন্ন রোগকেও প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে এবং মস্তিষ্কের নিজস্ব কোষ অর্থাৎ নিউরনকে ভালো রাখে।

বিজ্ঞানীরা অনেক দিনের গবেষণা ও পর্যবেক্ষণ থেকে জেনেছেন যে দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল থাকলে অ্যালঝেইমারস ও পারকিনসনসের মত মস্তিষ্কের রোগ দ্রুত বিস্তার লাভ করে। অন্যদিকে সুস্থ সবল ইমিউনিটি অনেকখানিই এসব ঠেকিয়ে দেয়। পাশাপাশি হতাশা, পোস্ট ট্রমাটিক স্ট্রেস ডিজঅর্ডার, স্পাইনাল কর্ডের আঘাতজনিত সমস্যা এগুলোও কাটিয়ে ওঠা সহজ হয়। দেহের অন্যান্য অংশের থেকে মস্তিষ্ক সম্পূর্ণ স্বতন্ত্র এই ধারণাকে গবেষকদের এসব পর্যবেক্ষণ অনেকটাই বদলে দিয়েছে। এখন মনে করা হচ্ছে ইমিউন সিস্টেমের বিভিন্ন কোষ বা সেল, বিশেষ করে টি সেল মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বজায় রাখা এবং কখনো কখনো নতুন নিউরন তৈরীতেও ভূমিকা পালন করে। আর এ থেকেই চিকিৎসার এক নতুন পদ্ধতির সূচনা হয়েছে যার নাম নিউরো ইমিউনিটি। এটি এখনো মূলত গবেষণা পর্যায়েই রয়েছে, তবে বিভিন্ন প্রানীর উপর পরীক্ষা থেকে জানা যায় ইমিউন সেলের মাধ্যমে চিকিৎসায় ক্ষতিগ্রস্থ নিউরনকে সারিয়ে তোলা সম্ভব। এমনকি এ পদ্ধতিতে নতুন নিউরন তৈরীর প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত হতেও দেখা গেছে।

অর্থাৎ মস্তিষ্ককে সতেজ ও ক্ষুরধার রাখতে আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে চাঙা করতেই হবে। এজন্যে প্রথমেই যা প্রয়োজন তা হল সঠিক খাবার। পুষ্টিকর খাবারের পাশাপাশি খেতে হবে প্রচুর পরিমাণে টকজাতীয় ফল। এছাড়া শরীরের প্রতিটি অঙ্গকে সচল রাখতে চাই নিয়মিত ব্যায়াম। আর সর্বোপরি, স্ট্রেসমুক্ত জীবনযাপন। প্রতিদিনের ব্যস্ততা, ক্লান্তি আর ধকল আমাদের স্বাস্থ্যের উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। তাই মাঝে মাঝে মেডিটেশন করুন, ছুটি নিয়ে বেড়িয়ে আসুন - আর সব স্ট্রেসকে পেছনে ফেলে ফুরফুরে হয়ে যান।

মনে রাখতে হবে, শরীরের কোন অংশই কম গুরুত্বপূর্ণ নয় এবং স্বতন্ত্র নয়। সুস্বাস্থ্য বজায় রাখতে হলে মস্তিষ্কসহ পুরো দেহকেই ভালো রাখতে হবে, আর সেজন্যে শক্তিশালী ইমিউন সিস্টেমের কোন বিকল্প নেই।


ডাক্তারের অ্যাপয়েন্টমেন্টের জন্য ক্লিক করুন এই লিঙ্কে: https://mytonic.com/bn/doctors  

১৮৬ বার পড়া হয়েছে আগস্ট ৬, ২০১৭


১৮৬ বার পড়া হয়েছে


agency_content's picture

লিখেছেন টনিক

ভালো থাকতে ছোট বড় সব চেষ্টায় আপনার পাশে আছি আমরা। টনিক।

সংশ্লিষ্ট প্রশ্ন

উত্তর দেখুন
 
লোডিং...

টনিক ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন

আজই টনিকের সকল সাধারণ ফিচার উপভোগ করুন

আপনার গ্রামীণফোন নাম্বারটি প্রদান করুন

০১৭ -

Top