স্লিপ অ্যাপনিয়া বা ঘুমের মধ্যে শ্বাস প্রশ্বাসের ব্যাঘাত ঘটা বিরল কোন রোগ নয়। তবে প্রায় সময়ই আমরা এই সমস্যাটির গুরুত্ব বুঝতে পারি না। আপনার পরিবারে যদি এমন কেউ থাকে যে ঘুমের মধ্যে নাক ডাকে, সারাদিন ক্লান্ত বোধ করে, তবে এটি হতে পারে স্লিপ অ্যাপনিয়ার লক্ষণ- তার চিকিৎসার উদ্যোগ নিন আজই।

একজন স্লিপ অ্যাপনিয়া রোগীর ঘুমের মধ্যে অসংখ্যবার, এমনকি ঘন্টায় ত্রিশ বা তারও বেশী বার শ্বাস প্রশ্বাস থেমে যেতে পারে, এবং প্রতিবার শ্বাস বন্ধ অবস্থার স্থায়িত্বকাল কয়েক সেকেন্ড থেকে মিনিট পর্যন্ত হতে পারে। এরপর আবার স্বাভাবিক শ্বাস প্রশ্বাস শুরু হয়। এসময় নাকডাকার মত শব্দ হতে পারে। ক্রমাগত এই ব্যাঘাতের কারণে ঘুম গভীর হতে পারে না, ফলে স্লিপ অ্যাপনিয়া রোগী সারাদিনই ক্লান্ত-অবসন্ন বোধ করেন। এমনকি দেহে ও মস্তিষ্কে পর্যাপ্ত অক্সিজেন না পৌঁছার একটি কারণও হতে পারে স্লিপ অ্যাপনিয়া।

এই রোগটির দুটো ধরণ রয়েছে। প্রথমটি হল অবস্ট্রাকটিভ স্লিপ অ্যাপনিয়া যেখানে শ্বাসনালীর কোথাও কোন একটি বাধার কারণে শ্বাস প্রশ্বাসে ব্যাঘাত ঘটে। রোগী যখন জোর করে শ্বাস নেয়ার চেষ্টা করে তখনই নাক ডাকার আওয়াজ হয়। যে কারোরই এই সমস্যা হতে পারে তবে অতিরিক্ত ওজন, ছোট বাচ্চাদের ক্ষেত্রে বড় টনসিল এ ধরণের স্লিপ অ্যাপনিয়ার ঝুঁকি বাড়ায়। দ্বিতীয় ধরণটি হল সেন্ট্রাল স্লিপ অ্যাপনিয়া যেখানে মস্তিষ্ক থেকে সঠিক সংকেত না পাওয়ায় শ্বাস প্রশ্বাসের মাংসপেশী মাঝে মাঝে কাজ বন্ধ করে দেয়। এটি তুলনামূলক কম হয় এবং অন্যান্য কিছু রোগ ও ওষুধের সাথে এর সম্পর্ক রয়েছে।

স্লিপ অ্যাপনিয়ার চিকিৎসা দীর্ঘমেয়াদী ও ধৈর্য সাপেক্ষ। লাইফস্টাইলে পরিবর্তন এনে, মাউথপিস বা ব্রিদিং ডিভাইস ব্যবহার করে এবং প্রয়োজনে অপারেশন করে এটিকে বেশীর ভাগ ক্ষেত্রে নিরাময় করা যায়। তবে চিকিৎসা না করে ফেলে রাখা যাবে না, কারণ উচ্চ রক্তচাপ, হৃদরোগ, স্ট্রোক, ডায়াবেটিসের মত রোগের সাথে এর সম্পর্ক রয়েছে। এছাড়া অতিরিক্ত ক্লান্তিভাব থেকে যে কোন দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

স্লিপ অ্যাপনিয়া চিকিৎসকের পক্ষে সনাক্ত করা কঠিন। এটি নির্ণয় করার জন্য কোন পরীক্ষা নেই, এবং যেহেতু শুধু ঘুমের মধ্যে হয়, রোগী নিজে বেশীর ভাগ সময় এ সম্পর্কে সচেতন থাকেন না। পরিবারের অন্য সদস্যদের কাছ থেকে শুনে  বা তাদের সাহায্য নিয়ে এটি সনাক্ত করা হয়। তাই পরিবারের কারো এরকম সমস্যা হতে দেখলে উপেক্ষা করবেন না- কারণ আপনার একটু সাহায্য হয়তো একজন রোগীকে নিশ্ছিদ্র নির্বিঘ্ন ঘুম এনে দিতে পারে।

agency_content's picture
লিখেছেন
টনিক
Tonic is there to assist you no matter how big or small your problems may be